আজ ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মে, ২০২৪ ইং

টিকটকে আসক্ত হয়ে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে নিজ স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা

মোঃ মনির হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধি : সাভারে ব্যাংকার স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী আমিনুর রহমান (৩৩) বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে গত ৬ অক্টোবর ২০২৩ইং সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন, নিহতের মা নুরজাহান বেগম (৫২)। জানা যায় প্রিমিয়ার ব্যাংক সাভার শাখায় কর্মরত নওশিন জাহান মিতুর (৩০), গত চার মাস আগে বিয়ে হয় আমিনুর রহমান (৩৩)।

মিতুর মা ও তার স্বামী সাভারের সি/৪৯ স্মরণিকা আবাসিক চতুর্থ তলার মুন্নাত খানের বাসার ভাড়াটিয়া।

বিয়ের পর মিতু জানতে পারে তার স্বামী আমিনুর টিকটকে আসক্ত।

এমনকি টিক টক এ বিভিন্ন নারীদের সাথে তার অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে।

বিষয়টি মিতুর নজরে আসলে মিতু আমিনুরকে টিক টক করতে নিষেধ করেন, সেই থেকে দুজনের মধ্যে শুরু হয় বাগবিতণ্ড, এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে হাতাহাতি হয়, আর সেই থেকে শুরু হয় পারিবারিক কলহ।

অবশেষে গত চার অক্টোবর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লাগলে, মিতুর মা নুরজাহান এসে থামিয়ে দেয়। সকাল হলে আমিনুর মিতুর মাকে ডাকেন এবং বলেন মিতু সম্ভবত অজ্ঞান হয়ে গেছে। সাথে সাথে মিতুর মায়ের  আহাজারীতে আশে পাশের লোকজন সমবেত হয়, এবং মিতুকে অচেতন অবস্থায় সকলের সহযোগিতায় সাভার সুপার হসপিটালে নেয়া হয়,পড়ে  চিকিৎসায় বিলম্ব হচ্ছে মনে করে তারা সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালে নিয়ে যায়, সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মিতুকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিয়ে নিহতের মা নুরজাহান বেগম (৫২) গণমাধ্যমকে জানান তার মেয়েকে পারিবারিক কলহের জেরে, গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে। মেয়ে হত্যার বিচার দাবি করেন এবং আসামির ফাঁসি চান। এদিকে অভিযুক্ত স্বামী আমিনুরকে জেল হাজতে পেরন করেছেন সাভার মডেল থানা পুলিশ। তার বিরুদ্ধে নিহতের মা বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় ৩০২ ধারায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিষয়ে বিজ্ঞ আইনজীবী, মোঃ রনি রহমান জানান আসামিকে সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় আনা হবে ইনশাআল্লাহ। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং আসামিকে তার এই জঘন্য কাজের জন্য সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করবেন।

উল্লেখ্য অভিযুক্ত আমিনুর সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি থানার, কানাই উপজেলার মনজুর কাদের চৌধুরীর ছেলে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ