আজ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

রাজশাহীতে এক নারীর অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে মানববন্ধন

ছোটন সরদার, রাজশাহী : রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সিডিসি প্রজেক্টের নেত্রী রিনা বেগমের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী মানববন্ধন করেছে। এই নারীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন লোকজনদের উপর মামলা দিয়ে হয়রানি, মামলা মিমাংসার নামে টাকা হাতিয়ে নেয়া, সুদের ব্যবসাদসহ বিভিন্ন অভিযোগ মানববন্ধনে তোলা হয়। এমন কি তাদর দুই মেয়ে পপি ও ববি এবং পুলিশের সোর্স, পরিচয়কারী শিরোইল কলোনীর আলিমের বিরুদ্ধেও বিস্তর অভিযোগ তোলা হয়। আজ১৪ ফেব্রুয়ারী  বুধবার দুুপুরে রাজশাহী মহানগরীর রেলগেট এলাকায় স্থানীয় প্রায় দেড় শতাধিক নারী পুরুষ এ মানববন্ধনে অংশ নেন। মানববন্ধনে অভিযোগ করা হয়, রিনা বেগমের বাড়ি নগরীর শিরোইল কলোনী এলাকায়। তার একটি গ্যাং রয়েছে। সেই গ্যাংয়ের প্রধান তিনি। কারণে অকারণে রিনা বেগম লোকজনদের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে। পরে উল্টো তিনি মারধরের শিকার ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তিনি কখনো কখনো নিজের শরীর কাপড় ছিড়ে প্রতিবেশি লোকজনদের উপর মামলা করেন। আবার নিজের বাড়ি নিজেই ভাংচুর করে প্রতিবেশিদের উপর মামলা করার নজির রয়েছে। তিনি নিজেই তার বাড়ি ভাংচুর করার পর প্রতিবেশিদের উপর মামলা দায়ের করেছেন। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।
মামলা দায়ের পর সেই মামলা মিমাংসার নামেও রিনা বেগম হাতিয়ে নেয় মোটা অংকের টাকা। বিশেষ করে এলাকায় পুলিশের সোর্স পরিচয়দানকারী আলিম নামে এক ব্যক্তি রিনা বেগমের ডান হাত হিসাবে ব্যবহার করেন। আলিমের সাথে পুলিশের ভাল সম্পর্ক থাকায় কারণে অকারণে লোকজনদের তিনি পুলিশ দিয়ে হয়রানি করে থাকেন। তিনি স্থানীয়দের বিরুদ্ধে পুলিশ কমিশনার পর্যন্ত অভিযোগ দিয়েছেন। রিনা বেগমের অত্যাচারে অতিষ্ঠ্য হয়ে এলাকার প্রায় দেড় শতাধিক নারী পুরুষ মানববন্ধনে দাঁড়ান। চান তার দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি।মানববন্ধনে ভুক্তভোগিদের মধ্যে রানা, সালমা খাতুন, আলেয়া বেগম, জহুরা খাতুন, পারভিন, জিয়াউর রহমান, সিয়াম, আব্দুল খালেক মানিকসহ নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ