আজ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং

বিয়ে বাড়িতে মদ্যপান, অসুস্থ হয়ে মামা-ভাগনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার : মানিকগঞ্জে বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত মদ্যপানে অসুস্থ হয়ে  দীপু সরকার (২৯) ও প্রসেনজিৎ সরকার (২১) নামর দুই মামা-ভাগনের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় সঞ্জয় ও নিত্য নামে দুই জন আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীরে রয়েছে।
গতকাল শনিবার রাতে সদর উপজেলার হাটিপাড়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের শুশীল বৈরাগীর বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে তারা মদ্যপানে অসুস্থ্য হয়ে পরলে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁদের মৃত্যু হয়।
 নিহত দীপু সরকার গাজীপুরের ভাওয়াল কলেজ এলাকার সতীশ সরকারের ছেলে। এবং প্রসেনজিৎ সরকার মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার দাসকান্দি বয়ড়া গ্রামের মৃত প্রকাশ সরকারের ছেলে।
 নিহত প্রসেনজিৎ নিহত দীপুর বড় বোনের ছেলে ছিলেন।
নিহত দীপুর মামাতো ভাই সঞ্জয় বৈরাগী বলেন, ‘বোনের বিয়ে উপলক্ষে রাতে ৮-১০ জন মিলে তরল কিছু পান করে। এদের মধ্যে ছয়-সাতজন অসুস্থ হয়ে পড়ি। বেশি অসুস্থ হয়ে গেলে  শনিবার সন্ধ্যায় প্রসেনজিৎকে হরিরামপুর উপজেলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থা গুরুতর হলে মানিকগঞ্জ কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। আর দীপুকে মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় হাটিপাড়া ইউনিয়নের পরিষদের সচিব  মোঃ নজরুল ইসলাম  ঘটনা সুনেছেন বলে জানান।
একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।
হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার রাশেদা নাজনীন বলেন, প্রসেনজিৎকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে তাঁর পালস পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে তাঁকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। দেশীয় মদ্যপান মৃত্যু কিনা জানতে চাইলে বলেন, ‘সে সম্পর্কে বলতে পারছি না।’
এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিল হোসেন বলেন, প্রসেনজিতের লাশের সুরতহাল করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া হরিরামপুর থানা দেখবে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে হরিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুজিবুর রহমান বলেন, মানিকগঞ্জ সদর থানা এলাকায় মদ্যপানে দুজন মারা গেছে। এর মধ্যে একজন হরিরামপুরের, আরেকজন গাজীপুরের। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ