আজ ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মে, ২০২৪ ইং

শিবালয়ে অস্বাভাবিক বক্তব্য দিয়ে ভাইরাল চেয়ারম্যান প্রার্থী!

স্টাফ রিপোর্টার : মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ আব্দুর রহিম খান গণমাধ্যমে দেয়া  অস্বাভাবিক বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে । বক্তব্য টি নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে শিবালয় উপজেলার সাধারণ ভোটারদের মধ্যে।

জানা যায়, চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আব্দুর রহিম খান সম্প্রতি গনমাধ্যমে বলেন, ” কবরস্থান থেকে আট দশজন লোক এসে আমার  গাড়িতে ককটেল মারলো আমি তাদেরকে চিনেছি, আকাশ বাতাস কাঁপানো শব্দে বিস্ফোরণ হয় আমি বিস্মিত হয়েছি”।

সম্প্রতি তার এমন বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এমন বক্তব্যের পর  উপজেলাজুড়ে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে।

 উপজেলা নেতৃবৃন্দ  ও সাধারণ মানুষ তার এ বক্তব্যর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং এ বক্তব্য বিভ্রান্তিমূলক ও আপত্তিকর বলে দাবি করেছেন।

উল্লেখ্য, শুধু গণমাধ্যমকে এমন বক্তব্য দিয়েই ক্ষ্যান্ত যাননি ওই চেয়ারম্যান প্রার্থী করেছেন একটি অভিযোগ।

শিবালয় উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি রাকিব হাসনাত আওয়াল বলেন, তিনি একটি নাটক সাজিয়ে সাধারণ ভোটারদের সিমপ্যাথি পাওয়ার চেষ্টা করতে চেয়েছিলেন কিন্তু  মানুষ তাকে ভালো করেই চিনেন । রহিম খান নিজের অপকর্ম ঢাকতে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। তিনি মিথ্যা নাটক সাজাতে গিয়ে আপত্তিকর বক্তব্য দিয়ে ভাইরাল হয়ে গেছে।

শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও আরুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোনায়েম মুনতাকিম রহমান খান অনিক বলেন, তিনিতো ইমেজ সংকটে পড়েছে। তার আগের অনেক কর্মকান্ড আছে সেই গুলো জনগণের জন্য খুব হয়রানিকর, এর আগে মন্দির ভাঙচুর করেছে সেই মামলায় জেল হাজতে ছিলেন ‌। মসজিদে তালা ঝুলিয়ে সাধারণ মানুষকে হয়রানি করছেন । সম্প্রতি একটি ভিডিও ফুটেজ ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে আমিও দেখেছি। কিছু অস্বাভাবিক কথা বলার কারণে অনেকেই টিকটক তৈরি  করে শেয়ার করেছেন।

এ বিষয়ে কথা বলতে  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আব্দুর রহিম খানের মুঠোফোনে একাধিক বার ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ