আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২৪ ইং

নোয়াখালীতে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ভুয়া চিকিৎসক গ্রেপ্তার

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ জেলার চাটখিল পৌর বাজারে অভিযান চালিয়ে নূর হোসেন পলাশ (৪২) নামের এক ভুয়া চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত পলাশ এক কলেজ ছাত্রীকে তার চেম্বারে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
একইসাথে ওই প্রতিষ্ঠানে অনেক রোগি অপচিকিৎসার শিকার হয়েছেন এমন অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চাটখিল বাজারের রক্তিম রোজ মেডিসিন পার্ক নামের ওই প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আকিব ওসমান।

গ্রেফতারকৃত ভুয়া চিকিৎসক নুর হোসেন পলাশ চাটখিল পৌর বাজারের রক্তিম রোজ মেডিসিন পার্কের মালিক, পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পূর্ব গোবিন্দপুর গনি মিয়া সাব বাড়ির খোরশেদ এর ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আঠারো বছর বয়সী ওই ভুক্তভোগি স্থানীয় একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। অভিযুক্ত নুর হোসেন পলাশের দুঃসম্পর্কের আত্মীয় হয় ওই ছাত্রী। গত ২৬ মে বুধবার কলেজে ক্লাস শেষে বাড়ি ফেরার পথে তার কিছু মেডিকেল রিপোর্ট দেখানোর জন্য পলাশের ফার্মেসীতে যায় ওই ছাত্রী। চেম্বারে যাওয়ার পর ছাত্রীর মাস্ক খুলে তার নাকের কাছে কিছু একটা ধরে তাকে অচেতন করে ফার্মেসীর পিছনের একটি কক্ষে নিয়ে যায় পলাশ। পরে তাকে অচেতন রেখে ধর্ষণ করে পলাশ। জ্ঞান ফেরার পর একাধিক বার চেষ্টা করেও রক্ষা পায়নি সে। ধর্ষণ শেষে পলাশ ভুক্তভোগিকে ধারালো ছুরি দেখিয়ে এই ঘটনা কাউকে বলতে নিষেধ করে দেয়। ভয়ে ওই ছাত্রী বিষয়টি কাউকে বলেনি, তবে গত শুক্রবার ভুক্তভোগী ধর্ষণের ঘটনা চিরকুটে লিখে তার মাকে দেন। রোববার তারা এ বিষয়ে থানায় মোখিক অভিযোগ করলে সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে তার ফার্মেসী থেকে পলাশকে গ্রেপ্তার করে। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আকিব ওসমান অভিযান চালিয়ে ওই ফার্মেসীটি সিলগালা করে দেন।
ভুক্তভোগীর মা জানান, ‘আমি ছোট একটা চাকরি করে সংসার চালাই। যে আমার এই এতিম সন্তানকে এভাবে নির্যাতন করছে, আমি তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমদাদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদি হয়ে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। সোমবার সকালে আসামিকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ