আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং

গাজীপুরে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর ভূমি দস্যুর হামলা!

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরের অগ্নিশিখা পত্রিকার ‘স্টাফ রিপোর্টার’ বিপ্লব হোসেন ফারুকের উপর অতর্কিত হামলার ঘটনা ঘটেছে।

প্রতক্ষদর্শী ও অভিযোগ সুত্রে জানা যায় গত ২২ অক্টোবর রবিবার বিকাল ৩ টায় গাজীপুর সেটেলমেন্ট অফিস থেকে পেশাদারী কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে সেটেলমেন্ট অফিস প্রাঙ্গনেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে অতর্কিত হামলা করে ভূমি দস্যু ইদ্রিস আলী ও তার সহোদর ভাই রমজান আলী সহ অজ্ঞাত আরো ৪ জন।

এ সময় ভূমিদস্য ইদ্রিস আলীর হাতে থাকা মোটরসাইকেলের চাবি দ্বারা এলো পাথারি আঘাত করলে সাংবাদিক বিপ্লব হোসেন ফারুকের মুখের নিচের চোয়াল এর একটি দাঁত ভেঙে যায় এবং
শারীরিকভাবে চরম লাঞ্ছিত মারধর ও তার মোবাইল ক্যামেরাসহ বেশ কিছু জিনিস ছিনিয়ে নিয়ে ভেঙ্গে ফেলা হয়।

পরবর্তীতে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়। রবিবার মর্মান্তিক এই ঘটনা জানাজানি হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠে গাজীপুর সহ সারাদেশের সাংবাদিক সমাজে।

এ বিষয়ে আহত বিপ্লব হোসেন ফারুকের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,গাজীপুরের কাশিমপুর থানার এনায়েতপুর এলাকায় বসবাসরত ইদ্রিস আলী ও রমজান আলী দুই ভাই সহ কয়েকজন সহযোগী মিলে বিভিন্ন নিরীহ লোকের জমি জবরদখল ভোগ দখল করছে।

এই সংক্রান্ত বিষয়ে গত ১৮/১০/২৩ইং তারিখে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করি। এরই প্রেক্ষিতে পরিকল্পিতভাবে গত ২২/১০/২০২৩ তারিখে বিকালে ৩ টা ২০ মিনিটে আমি গাজীপুর সেটেলমেন্ট অফিস থেকে বের হওয়ার সময় তারা দুই ভাই সহ আরো চারজন মিলে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। বাড়ী যাওয়ার পথে সেটেলমেন্ট অফিস পার হতে না হতে দুই ভাই সহ অজ্ঞাত চারজন সহ আমার সামনে এসে আগের পূর্বপরিকল্পনা মোতাবেক আমার উপর অতর্কিত হামলা করে আমার মুখে আঘাত করলে আমার একটি দাঁত ভেঙে যায়।

এ সময় তারা আমার গলায় থাকা একটি স্বর্ণের চেন, মানি ব্যাগ এবং ভিডিও ফুটেজ সংবলিত ক্যামেরা ও মোবাইল ভেঙে ফেলে।

এ ঘটনায় জিএমপির সদর থানায় ভুক্তভোগী বিপ্লব হোসেন ফারুক নিজে বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে গাজীপুর সদর থানা পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ মো: জিয়াউল ইসলাম জিয়া বলেন,ভুক্তভোগী অভিযোগ দায়ের করেছেন তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ