আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং

মানিকগঞ্জে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার : মানিকগঞ্জে স্বর্ণ চোরাচালানের মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে মানিকগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জয়শ্রী সমাদ্দার আসামিদের উপস্থিতিতে এই রায় দেন।
মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি মথুর নাথ সরকার বিষয়টি নিশ্চীত করেছেন।
দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার লোহাকুড়া গ্রামের মৃত রুহুল আমিনের ছেলে ইয়াহিয়া আমিন, যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার সংকরপুর গ্রামের মৃত শেখ মোজাম্মেল হকের ছেলে শেখ আমীনুর রহমান ও শেখ জাহিদুল ইসলাম, মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার নাগেরহাট গ্রামের আ. রহমান ব্যাপারীর ছেলে মো. মনিরুজ্জামান রনি এবং লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার জগৎপুর গ্রামের আহম্মদ উল্লাহর ছেলে জহিরুল ইসলাম তারেক।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর ঢাকা থেকে মহাসড়ক হয়ে স্বর্ণ নিয়ে চোরা কারবারিরা বেনাপোল যাচ্ছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব- ২ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের তরা এলাকায় চেকপোস্ট বসায় । বেলা ১১টার দিকে বেনাপোলগামী একটি বাসের গতিরোধ করা হয়। এ সময় বাসের যাত্রীদের নামার অনুরোধ করলে পাঁচজন পালানোর চেষ্টা করলে র‌্যাব তাদেরকে আটক করে। পরে তাদের দেহ তল্লাশি করে ২২৭টি স্বর্ণের বার (৪৩.৭ কেজি) উদ্ধার করা হয়। জব্দকৃত স্বর্ণের কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় পরের দিন ৫ অক্টোবর মানিকগঞ্জ সদর থানায় মামলা রুজু হয়। তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর সদর থানা পুলিশের এসআই মো. হারেস সিকদার আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় ১৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক আজ বুধবার (১৩ মার্চ) মামলার রায় প্রদান করেন।
মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি মথুর নাথ সরকার সন্তোষ প্রকাশ। অপরদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. নজরুল ইসলাম বাদশা অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানান।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ