আজ ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুন, ২০২৪ ইং

ধামরাইয়ে এমপির যুগলবন্দী ছবি দিয়ে রঙিন পোস্টার, জরিমানা গুণলেন মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী 

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটের মাঠে প্রভাব বিস্তারের জন্য সংসদ সদস্যের সাথে খালেদ মাসুদ খান লাল্টুর যুগলবন্দী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঢাকার ধামরাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটের মাঠে প্রভাব বিস্তারের জন্য সংসদ সদস্যের সাথে যুগলবন্দী ছবি দিয়ে রঙ্গীন পোস্টার সাঁটানোর দায়ে এক উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

সোমবার (২০ মে) দুপুরে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খান মো: আব্দুল্লা আল মামুন। এর আগে গত শনিবার  (১৮ মে) রাতে ধামরাই উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) প্রশান্ত বৈদ্য মোটরসাইকেল প্রতীকের ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী খালেদ মাসুদ খান  লাল্টুকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী খালেদ মাসুদ খান  লাল্টু  নির্বাচনী আচরণ বিধি ৫ ও ৬ ধারা ভঙ্গ করায় তাকে এই জরিমানা করা হয়।

নির্বাচনী আচরণ বিধির ৫ এ বলা হয়েছে, নির্বাচনি প্রচারণায় কোন প্রতিদ্বন্দ্বী, প্রার্থী নিজ ছবি ও প্রতীক ব্যতীত অন্য কারও নাম ও ছবি কিংবা প্রতীক ছাপাইতে বা ব্যবহার করতে পারবে না। তবে  প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কোন রাজনৈতিক দলের মনোনীত হলে দলের বর্তমান দলীয় প্রধানের ছবি পোস্টারে বা লিফলেটে ছাপাতে পারবেন। আচরণ বিধি ৬ ধারা অনুযায়ী কোন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী প্রতীক ব্যবহার বা প্রদর্শনের জন্য একাধিক রং ব্যবহার করিতে পারবেন না।

কিন্তু মোটরসাইকেল প্রতীকের ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী খালেদ মাসুদ খান লাল্টু স্থানীয় এমপিকে জড়িয়ে ধরার একটি ছবি দিয়ে একাধিক রং ব্যবহার করে পোস্টার ছাপিয়ে নির্বাচনী এলাকায় টাঙ্গিয়ে ছিলেন।

এবষিয়ে সহকারি কশিশনার (ভূমি) প্রশান্ত বৈদ্য এর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে জানা যায়, তিনি বর্তমানে দেশের বাহিরে আছেন।

ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খান মো: আব্দুল্লা আল মামুন বলেন, যেহেতু মাননীয় সংসদ সদস্যের সাথে পোস্টার পাওয়া গিয়েছে। সেহেতু যদি নির্বচান আচরণ বিধি মালা অনুযায়ী আমরা ধরেই নেই তাহলে কোন পোস্টারে যে প্রার্থীর ছবি পাওয়া যাবে সেটা তারই পোস্টার। সেই ক্ষেত্রে প্রার্থীকে ডাকা হয়েছিলো এবং নির্বাচনী আচরণ বিধির আইন অনুযায়ী তাকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ১ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। তিনি জরিমানার টাকা পরিশোধ করাতে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এবিষয়ে মোটরসাইকেল প্রতীকের ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী খালেদ মাসুদ খান লাল্টুর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরও সংবাদ